বাহ্য প্রাণায়াম - whatsappstatus99

LATEST

Monday, September 2, 2019

বাহ্য প্রাণায়াম

বাহ্য প্রাণায়াম

বাহ্য প্রাণায়াম

 লম্বা করে শ্বাস নিয়ে পুরো শ্বাস ছেড়ে দিন।  এই শ্বাস ছাড়া অবস্থাটিকে বাহ্যকুম্ভক।
অর্থাৎ প্রাণবন্তেরা সম্পূর্ণ বায়ুশূন্য।  এই তালিকা থেকে ক্রিয়া শুরু করুন।
 প্রথম ক্রিয়াকর্তাথুনিটি  গলার কন্ঠনালীতে ঠেসে। ধরুন। একে বলে জালন্ধর বন্ধ। এরপর  মূলধারাকে পুরো ভিতরেরদিকে টেনে নিন এবং স্বিদিংসকে সংকুচিত করুন। অর্থাৎ মূলবধ, উড্ডিয়ান ও জলন্ধর বন্ধের বলা হয় মহাবন্ধ।
উড্ডীয়ান বন্ধ  -  পেট এবং নাভির উপরের দিক পিঠের‌ দিকে আকর্ষণ করলেই তাকে উড্ডিয়ান বন্ধ বলে।
কিভাবে করবেন  - এই মুদ্রা ভ্রমণ বা উভয়ভাবে করা উচিত।  যদি কোন সমস্যা হয় তবে দু'হাতে হাত রাখুন বসে  আর যদি কিছু হয় না তবে তার পরে আর দু'টো হাত মাখানো হয় আর  হাত দুটো ঠিক পাতানো কাধ ও গ্রীবার পেশাগত থাকুন করবেন  তলপেটের সামনের পেশাগত পরিস্থিতি সম্পর্কে আলোচনা করা উচিত্বা শ্বাস  বুক সিটিকেশন এবং কাধ ও গ্রীবার এবং পেশী সংযুক্তি।  শ্যাশনের সাথে যোগাযোগ করার সাথে সাথে বন্ধ রাখার পেট এবং নাভিরের নীচে এবং নীচে অংশের মেরুদণ্ডের দিকে টেনে নিবেন। পেট ও পিঠে একসাথে লেগে থাকবে যতক্ষণ শ্বাসরদ্ধ থাকবে ততক্ষণ এভাবেই থাকতে হবে। আবার পেট সংকুচিত করার সময় পেশীতে যাতে টান না পড়ে সেদিকে দৃষ্টি রাখবেন । এই প্রক্রিয়াটি খালিপেটে বা খাওয়ার তিন ঘন্টা বাদে করলে ভালাে হয় । প্রথমে । এই প্রক্রিয়া ৪ / ৫ বার করবেন । পরে ধীরে ধীরে বাড়াবেন । 

উপকারিতা -  এই প্রক্রিয়াটিতে মূলত তল পেটের ব্যায়াম হয় । যার ফলে কোঠাতা , উদারময় ও মধুমেহ রােগ নিরাময় হয় । 
জলাধর বন্ধ - কণ্ঠ সংকুচিত করে চিবুক দৃঢ়ভাবে বুকের কাছে টেনে । আনাকে বলে জলাধর বধঃ ।

কিভাবে করবেন -  সিধাসন , পদ্মাসনা বা সুশাসনে বসে এই মুদ্রাটি অভ্যাস করতে হয় । এই মুদ্রায় চিকটিকে কণ্ঠের সংগে দৃঢ়ভাবে আটকে রাখতে হবে । প্রথমে মাথা ও গ্রীবা সামনের দিকে তাকান তবে এটা সম্ভব হবে । 
উপকারীতা -  এই বধ অনুসরণ করলে মেরুদন্ড ও তার মাথার উপরে তে টান । পড়ে । যার ফলে মস্তিষ্ক ও স্নায়ুর ক্রিয়া সঠিকভাবে হয় । যার ফলে মাথার রােগ হয় না । 
মুল বন্ধ - পায়ের গোড়ালি দ্বারা মেয়েদের যােনিপ্রদেশ এবং ছেলেদের অন্ডকোষ দুটির তলদেশ চেপে ধাকে বলে মূলবন্ধ । 
কিভাবে করবেন — পদ্মাসন , সিসন বা সুখাসনে বসে শাসগ্রহনের সঙ্গে সঙ্গে মেয়ের যেনিপ্রদেশ এবং পুরুষের অন্ডশেষের তলদেশকে মেরুদন্ডেঃ দিকে আয় করবেন । ঐ সময় কয়েক সেকেন্ডের জন্য শ্বাস বন্ধ রাখতে হবে । তারপর আবার ধীরে ধীরে ছাড়তে হবে । 

উপকারিতা -  এই ক্রিয়ায় অভ্যস্ত হলে পুরুষদের বীর্যধারন ক্ষমতা বৃদ্ধি পায় । মেয়েদের মাসিক সংক্রান্ত রােগ হয় না । যার ফলে নারী পুরুষের দাম্পত্য জীবন সুখের হয় । 
 মহাবন্ধ - 
কিভাবে করবেন -  বা পায়ের গােড়ালি পুরুষের লিঙ্গ এবং মেয়েরা যােনি ওমলদ্বারে স : মাঝখানে শক্তভাবে চেপে ধরুন । এবার ডান পা জানুতে রাখুন । থুথনি গলার মধ্যে চেপে এ ধরুন । এবার শ্বাস নিতে নিতে মেয়েরা যােনি , ছেলেরা মলদ্বারের স্থান সঙ্কুচিত করুন এভাবে দশ / পনেরাে সেকেন্ড পা বদল করে করে করুন ।  
উপকারিতা - এই ক্রিয়াটি নিয়মিত ঠিকভাবে করতে পারলে ছেলেদের সহবাসের দূর্বলতা দূর হয়।

No comments:

Post a Comment